দিন যায় রাত আসে কমিতেছে হায়াত। আস্তে আস্তে যায় সবে দুনিয়া ছাড়িয়া।



দিন যায় রাত আসে কমিতেছে হায়াত,

চিন্তা করে দেখ সবে সামনে মউয়াত।

হাসি খুশি রং তামাসা ছাড়িয়া এখন,

কর সবে আল্লাহ আল্লাহ থাকিতে জীবন।

আদরের ছেলে মেয়ে আত্নীয় স্বজন,

সব ছেড়ে কবরে তুমি করিবে গমন।

একা একা যায় সবে সঙ্গে কেহ যায় না,

কবরে বিপদ আছে চিন্তা কেন করো না।

দুনিয়া হইতে যারা গিয়াছে চলিয়া,

হাজার কাঁদিলেও আর আসবে না ফিরিয়া।

চক্ষে দেখিয়াও কেন রহেছ ভুলিয়া,

একে একে সকলেই যাইতেছে চলিয়া।

কারও ছেলে কারও মেয়ে এরুপ করিয়া,

আস্তে আস্তে যায় সবে দুনিয়া ছাড়িয়া।

কারও মাতা কারও পিতা এরুপ করিয়া,

একে একে যায় সবে কবরে চলিয়া।

কারও বোন কারও ভাই সামনে দিয়া যায়।

তবু কেন মানুষেরা আল্লাহকে ভুলে রয়,

সকলেই দেখিতেছে নয়ন খুলিয়া,

দাদা নানা সকলেই গিয়াছে চলিয়া।

আমাদেরও যেতে হবে এই দুনিয়া ছেড়ে,

রবে শুধুু কর্মফল চিরদিনের তরে।

কিবা প্রয়োজন আমার একথা বলিতে,

দেখিতেছে সবে যখন আপন চক্ষেতে।

যখন হবে তোমার নামে সমন জারী,

ছাড়তে হবে পুত্র স্বজন এই ঘরবাড়ী।

কবর হবে বসতবাড়ী
জায়গা জমি আপনজন
কাজে না আসিবে তখন।
নেক আমলই হবে সাথী
আর যাহা ছিলো সবই ফাঁকি
সময় থাকতে ছাড় জঞ্জাল
তা না হলে পরকালে হবে কাঙ্গাল।

Post a Comment

0 Comments