BREAK-UP ব্রেকআপ আঘাত লেগেছে মনে! সফলতার অনুপ্রেরণা


BREAK-UP ব্রেকআপ আঘাত লেগেছে মনে! সফলতার অনুপ্রেরণা

BREAK-UP ব্রেকআপ আঘাত লেগেছে মনে! সফলতার অনুপ্রেরণা

এখনকার ট্যানডিং বিষয়টি হলো ব্রেকআপ। যার কারণটি হলো লাভ। এটা আজ ম্যাকসিমাম ছেলেমেয়েদের জীবনে ঘটে চলেছে। এই ভালোবাসার আকর্ষন, যেটা ধীরে ধীরে পরিণত হতে থাকে একটি রোগে। যার কারণে আমরা ভুলেই যাই, আমাদের জীবনের সবথেকে বড় পারপাস গুলোকে এবং তৈরি হতে থাকি একটি মানসিক রোগী তে। আজকের লেখা টি সেই সমস্ত ছেলে মেয়েদের জন্য। 

যাদের ভালোবাসা হয়ে গিয়েছে ব্রেক এবং তারা তাদের জীবনে হয়ে উঠেছে ফ্যাসটেড। যারা এখন সকল সময় একলা  থাকতে চায়। ভালোবাসার কথা শুনলেই তার মাথায় রাখ ছড়ে যায়। তারা পুরানো গুলোকে বলার চেষ্টা করে।, কিন্তু কিছুতেই সেগুলো সে মন থেকে মুছে দিতে পারে না। আর এরকম পরিস্থিতিতে আমরা ভুলেই যাই, নিজের জীবনের যত্ন নিতে। সারাদিন দেখতে থাকি ইমোসনাল পোস্ট আর সেড ভিডিও।

আর সে গুলোকেই বেশি বেশি করে সোশ্যাল মিডিয়া তে করে থাকি আমরা শেয়ার। কিন্তু তাদের প্রত্যেকের কাছেই আমার একটা প্রশ্ন আছে? তুমি কেন এরকম করছো? একটি মেয়ের জন্য হয়ে গিয়েছো দেবদাস।সেটা সবাইকে কেন প্রুভ করে দেখাচ্ছ? এখানে তোমার দুঃখ কষ্ট দেখে কারোর কোন কিছু এসে যায় না ভাই। এটা তোমার দুনিয়া। তোমাকে নিজেই এখানে খুশি থাকতে হবে। কারন তোমার জীবনে যখন কেউ আসার আগে তুমি খুশি ছিলে, তাহলে কেউ যাওয়ার পরও তুমি খুশি থাকো। এটা ব্রেকআপ না।

জীবনে আসা আর পাঁচটা কষ্টের মতন তুমি এটাকে দেখো। সে ছেড়ে চলে গিয়েছে, যেতে দেও। ধোঁকা দিয়েছে তাতেও কোনো ব্যাপার না। একসাথে জীবন কাটানোর স্বপ্ন দেখেছিলে। জ্যাস্ট ইগনোর ইয়ার।তার কোন ফটো যদি তোমার কাছে থেকে থাকে, তাহলে সেটাকে কোথাও হারিয়ে ফেলো। ওকে নিয়ে ভাবনা চিন্তা করে, কেন তুমি তোমার সময় নষ্ট করছো? আরে বন্ধ করে দাও ভাই। 

যদি এখনো তুমি তার ফিরে আসার স্বপ্ন দেখে থাকো। কারণ এখন করতে হবে মেহেনাত, নিজেকে আরও ইস্টংগ বানানোর জন্য। জিমে গিয়ে ঝরাতে হবে গাম, নিজেকে ফিট রাখার জন্য। অনেক ভেবেছ তার সম্বন্ধে আর নিজের মান্ড কে করেছো ডিজট্রাক। এবার ফোকাস করো নিজের ক্যারিয়ারে এ, আর সফলতাকে করো এট্যাক। কারণ যে তোমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছে, সেও যেন বুঝতে পারে। 

যে তাকে ছাড়াই তুমি তোমার জীবনে করতে পারো ক্যাম  ব্যাক।  ভাই এখন কান্নাকাটি করে টাইম নষ্ট করলে চলবে না। কারন তুমি লুজার নও। তোমাকে তোমার জীবনে কিছু করে না দেখার হবে না। নেগেটিভিটি আর তার স্মৃতি গুলো থেকে নিজেকে স্বাধীন করো। অনেক ওয়েস্ট  করেছো তোমার সময়। সেটাকে এবার ইউটেলাইজ করো। মনে রেখো, এরকম অনেক আসবে (বাবু, সোনা, জানো) বলার মতন। 

যখন লাইফে হবে স্যাকসেস আর পকেটে থাকবে মানি। তখন সবাই তোমাকে ভালোবাসবে, সবাই তোমার অপেক্ষা করবে। যখন হ্যাডওয়ার্ক করে নিজের স্বপ্ন গুলোকে তুমি করবে সাঁতার। তো বন্ধু কোন ছেলে বা কোনো মেয়ের জন্য নিজের স্বপ্ন গুলোর সাথে কখনো কমপ্রোমাইজ করোনা। সময় অনেক কম সুতরাং ওঠো আর নিজের স্বপ্ন গুলোকে রিয়ালিটি করো। 

যদি জেগে যাও সঠিক সময়ে, তাহলে অবশ্যই তুমি তোমার জীবনে কিছু না কিছু করতে পারবে। নয়তো, গোটা জীবনটাই দেবদাস হয়ে থেকে যাবে, আর শেষে আফসোস করতে করতে মারা যাবে। আমি জানি এগুলো বলা অনেক সহজ কিন্তু করা একটু কঠিন। ভাই আমার জীবনেও কিছু এমন ঘটনা ঘটেছে, আর সেই অভিজ্ঞতা গুলো লিখে তোমাদের সামনে প্রেজেন্ট  করা হয়েছে। চলো আরো দুলাইন এক্সট্রা 

তাতে কি হয়েছে? যদি সে তোমার ছেড়ে চলে গিয়েছে। এতদিনের তৈরি সম্পর্ক ভেঙে দিয়েছে, একসাথে সারাজীবন কাটানোর কথা দিয়েছিলো কিন্তু এক মুহূর্তে সব কিছু উল্টে দিয়েছে। ও বদলে গিয়েছে তো কি হয়েছে? তুই নিজের জন্য দ্বিতীয় আরেকটি ঘর বানা। সে টাকার জন্য তোকে ছেড়ে গিয়েছে, তুই গোটা শহরটাকে নিজের বানা। সূর্য ডুবে গেলে কখনো মন খারাপ করোনা। কারণ তাহলে তারাই ভরা সুন্দর আকাশ তুমি অনুভব করতে পারবে না।

obohelajibon/অবহেলা জীবন

Post a Comment

0 Comments