সিনিয়রের সাথে প্রেম রিলেশন অতঃপর ব্রেকাপ! (ভালোবাসার গল্প)



সিনিয়রের সাথে প্রেম রিলেশন অতঃপর ব্রেকাপ!

ওর নাম ফারিয়া, আমি তাকে প্রাক্তন মনে করি না, সে আমার মাঝে এখনো আছে

আমাদের প্রথম দেখা আমার এক কাজিনের বিয়েতে, আমি তার থেকে ১ বছরের ছোট, তার ও প্রথম প্রেম, আমার ও প্রথম, তাই প্রথম ভালোবাসা ভুলে যাওয়ার মত না।

প্রথম যেদিন আমি তাকে দেখি তখন ই তাকে ভালো লেগে যায়, তার হাসি ছিল খুব মায়াবী,
বিয়ে বাড়িতে আস্তে আস্তে কথা হয়, দুস্টামি হয়, সে ৫/৬ দিন পরে চলে যায় তার বাড়িতে, যাওয়ার সময় তার চোখে ছিল পানি,

আমি তার থেকে তার ফেসবুক আইডি জেনে নিই, তাকে রিকোয়েস্ট পাঠাই, সে দেখে রিকুয়েস্ট একসেপ্ট করে পেলল, মেসেজ দিলাম তাকে, প্রথম দিনই কথা হয় অনেক রাত পর্যন্ত, এভাবে কথা হত নিয়মিত তার সাথে,, আস্তে আস্তে আপনি থেকে তুমি তারপর, ২ মাস পরে ঈদের দিন আমি তাকে প্রপোজ করি সে আর মানা করে নি, আমার উপরেও তার মায়া বসে যায়, সম্পর্কের শুরু থেকেই আমি জানতাম তার জন্য বিয়ের প্রপোজ আসত,, এটা জানার পর ও আমরা রিলেশনে জড়িয়ে যাই, আবেগ কাজ করছে অনেক আমাদের তাই তো এ রিলেশন হয়ে গেল, 

এ আবেগ ছিল প্রায় ৩ বছর, ভালোবাসা ও ছিল অনেক, তারপর আমাদের রিলেশনে যাওয়ার পর তার সাথে দেখা করি, সেদিন অনেক বৃষ্টি হচ্ছিল, আমরা হাটছি রাস্তায় আর ভিজতেছি দুইজন, কি রোমান্টিক ছিল তাই না? হুম খুব ভালোই দিন ছিল, তার চোখে কাজল ছিল, বৃষ্টিতে ভিজে তার মুখে কাজল চলে আসছিল আর আমি মুছে দিচ্ছিলাম, প্রথম দিন আমি তার জন্য চকলেট কিনে নিই, সে আমাকে আসার সময় আরো কত গুলো চকলেট কিনে দিল,, 

আমি তাকে পরে জিজ্ঞাস করলাম , আমি তোমাকে চকলেট দিছি তাই তুমিও আমাকে এতগুলো চকলেট দিতেছো, সে বলছিল তখন আমার experience নাই তো তাই, এভাবে আমাদের আরো কয়েকবার দেখা হয়, রিলেশন ও প্রায় ৩ বছরের মত হয়ে গেল, আমাকে অনেক ভালোবাসত, আমাকে বলত তাকে নিয়ে কোথাও চলে যেতাম আমি, আবার নিজের পরিবারে কথা ও চিন্তা করত,, আমাদের মধ্যে অনেক পাগলামি ছিল, সে আমার জন্য ২ বার হাত ও কেটে পেলছে, আমি তাকে অনেক জালাইতাম সে অনেক সহ্য করত আমাকে, আমাকে বেশী ভালোবাসত তাই!

তার বিয়ের জন্য আসছিল আগে থেকেই, কয়েকদিন পর তার বিয়ে ঠিক হয়ে গেল, সে অনেক কান্না করছিল,সে আমাকে বলত ,আমি যদি কোন জব করতাম তাহলে সে আমার কথা বাড়িতে বলত,নয় তো আমার সাথে চলে যেত,, যেহেতু আমার ও বয়স কম, এমন রিলেশন কেউ মেনে নিবে না, তাই অসমাপ্ত থেকে গেল সব,

গত (১৭ মার্চ ) ১ বছর ২ মাস আগে তার বিয়ে হয়ে যায়,

আমাদের মাঝে ঝগড়া হত, সব রিলেশনে যা হয়, সে কলেজে পড়ত তার ছেলে ফ্রেন্ড ছিলো তাদের সাথে কথা বলত দুস্টমি করত, এসব আমার সহ্য হত না, তাই ঝগড়া হত, এটা কিন্তু সবার বেলায় ই হয় যে মেয়েদের ছেলে ফ্রেন্ড থাকতে পারবে তবে ছেলেদের মেয়ে ফ্রেন্ড থাকতে পারবে না, আমি সব সময় তার ভালো ই চাইতাম, এখনো চাই, তাকে বলতাম বোরকা পড়তে, নিয়মিত নামাজ পড়তে,,তাকে বললে সে নামাজ পড়ত,

একদিন তার সাথে আমার ঝগড়া হয়, যখন তাকে মেসেজ করেছিলাম তখন তাকে আপনি করে বলাতে সে অনেক্ষণ কান্না করছিল কল দিয়ে, সে মানুষটি এখন আপনি ছাড়া কথা বলে না!

তার বিয়ের আগে সে বলত, বিয়ের পর ও আমার সাথে কথা বলবে, কিন্তু তা হলো না,সে নিজেই চায় না আমার সাথে কথা বলতে,সে আমাকে বিয়ের কয়েকদিন আগে থেকে অবহেলা করা শুরু করে দিল,সে ভাবছে হয় তো বেশি কথা বললে আমি তার প্রতি আরো দূর্বল হয়ে যাব তাই, কথা বললে কেউ দেখবে তার সমস্যা হবে তাই কথা বলে না, আমি ও মেসেজ কল দিই না, কারণ আমি চাই না আমার কারণে তার সমস্যা হোক, খুব ইচ্ছে করে তার খবর জানতে, কেমন আছে সে?

সে আমার সাথে রিলেশনে থাকা অবস্থায় সে বলত তার বর যেন চাকরি করে এমন হয়,কোন প্রবাসী না হয়,আমাকে বলত সে টাউনে থাকতে চায়, তাই হলো তার বর ঢাকাতে জব করে সেখানে তাকে নিয়ে থাকে,,

তার বিয়ের আগের রাতে আমি অনেক কান্না করছি, অনেক কস্ট পাইছি, প্রথম ভালোবাসা তো তাই, আমি জানি না সে আমাকে এখনো ভালোবাসে কিনা, আমার কথা তার মনে পড়ে কিনা, তবে আমি এখনো তাকে মিস করি,

তার বিয়ে যখন ঠিক হয় তার ছেলে পছন্দ হয় নি, সে আমাকে বলত এসব কিন্তু পরিবারের কাউকে বলতে পারে নি,

যাকে পছন্দ না করে বিয়ে করছে, এখন তার সাথে ই তার দিন কাটছে,,বিয়ের দুই মাস পর ই তার বর সহ কভার পিক দেয় তার আইডি তে, আমার কেমন লাগবে তার এসব দেখে সে সেটা হয় তো চিন্তা করে নি, আমার অনেক খারাপ লাগছে তখন, তাকে বলার পর ও সে ডিলেট করে নি, সে হয় তো তার বর কে অনেক ভালোবাসে , কিন্তু আমাকে ও তো সারাজীবণ বলছে ভালোবাসবে, সে তার কথা রাখতে পারে নি, 

সে আমাকে তার বিয়ের পর কখনো শান্তনা দিয়ে কথা বলে নি আমার সাথে, তার দরকার ছিল আমাকে বুঝিয়ে কথা বলা, তাও তো একটু শস্তি পেতাম, তাকে বলতাম, তুমি আমার সাথে প্রতিদিন একটু কথা বল, সে তা করে নি, ফারিয়া বলত নাকি পরিস্থীতির স্বীকার সে , তাই সময় সুযোগ পায় না,সে ২ মাসের মধ্যে ১০ মিনিট ও সময় পায় না আমার সাথে কথা বলার,সে আরো বলত সে নাকি আমাকে ছাড়া বাঁচবে না

আমি তার সুখের কথা চিন্তা করি, সে তো আমার সুখের কথা কখনো চিন্তা করে না,

আমি অনেক কস্ট পাচ্ছিলাম তখন,আমার ঘুম, খাওয়া কিছুর ঠিক ছিল না, রাতে ঘুমাতে পারতাম না তাকে নিয়ে ভাবতে ভাবতে,, যাদের এমন ভালোবাসা ছিল তারা অবশ্যই বুঝতে পারবেন

এখন তার মধ্যে অনেক পরিবর্তন চলে আসছে , সে আর আগের মত নেই, তার পরিবর্তনে আমি আরো চিন্তিত, সে আমাকে ভালোবাসত সেটা ও আমি বিশ্বাস করতাম, হয় তো এখন আর ভালোবাসে না

তার প্রতি আমার এখন এ জন্যই রাগ হয়, সে আমাকে মেসেজ করে না, আমি অনেক দিন পর তাকে মেসেজ দিলে ও গুরুত্ব দেয় না

লিখতে গেলে আরো অনেক কিছু আছে,,
আরো পড়ুন>

এই মহামারির মধ্যে আল্লাহ যেন তাকে সুস্থ রাখে দোয়া করি।

(প্রিয় পাঠক) আমার এ বাস্তব জীবণের গল্প থেকে শিখার আছে আপনার ও,, আবেগে পড়ে আমরা এমন অনেক কিছু করে পেলি যেগুলোর কোন ভবিষ্যৎ নেই,, একজন চলে গেছে কিছু হয় নি, অন্য কেউ আসবে, অন্য কেউ আপনাকে ভালোবাসবে, যখন আপনার অতীত মনে পড়বে তখন আপনি কোন কিছু নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন, অন্য কিছু চিন্তা করার চেস্টা করবেন।

লেখা: Gazi Nahid Hasan Hridoy

Tags: ভালোবাসার গল্প, ব্রেকাপ গল্প, সিনিয়র সাথে প্রেম ভালোবাসা, সিনিয়রের সাথে ব্রেকাপ, প্রেম ভালোবাসা কষ্টের গল্প, ব্রেকাপ সিনিয়র আপুর সাথে, sad love bangla golpo, love motivation bangla

Post a Comment

0 Comments